হোমিওপ্যাথি ঔষধ খাওয়ার সময়ে এই ১০টি নিয়ম না মানলে হতে পারে আপনার সর্বনাশ…..

হোমিওপ্যাথি ঔষধ খাওয়ার সময়ে এই ১০টি নিয়ম না মানলে হতে পারে আপনার সর্বনাশ…..

হোমিওপ্যাথি চিকিৎসার উপরে অনেকেরই অগাধ আস্থা থাকে । অনেকে রীতিমতো উপকারও পান হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসায় । কিন্তু এই ধরনের ঔষধ খাওয়ার কিছু নিয়ম রয়েছে , যা না মানলে রোগের হাত থেকে মুক্তি মিলবে না । কী রকম নিয়ম ?

চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক হোমিওপ্যাথি ঔষধ খাওয়ার নিয়মগুলো ….. ভিডিও দেখতে নিচের এই ছবিতে ক্লিক করুন

১) হোমিওপ্যাথিক ঔষধ খাওয়ার ১০ মিনিট আগে বা পরে কিছু খাবেন না ।

২) হোপিওপ্যাথিক ঔষধ যতদিন খাবেন ততদিন কোনও রকম নেশা করবেন না । সিগারেট বা মদের মতো নেশাকর দ্রব্যে যে তীব্র সাপ্লিমেন্ট থাকে , তা ঔষধের কার্যকারিতাকে খর্ব করে দেয় ।

৩) হোমিওপ্যাথিক ঔষধ কখনওই হাতে নেবেন না । হাতে নিলে ঔষধের অভ্যন্তরীণ স্পিরিট উবে যায় । পরিবর্তে কাগজ কিংবা ঔষধের শিশির ঢাকনায় ঢেলে নিয়ে ওষুধ মুখে দিন ।

৪) হোমিওপ্যাথিক ঔষধ সেবনের আগে সাদা জলে ভাল করে কুলকুচি করে মুখ ধুয়ে নিন ।

৫) ঔষধ খাওয়ার পরে কোনও টক খাবার সেবন করবেন না । এতে ঔষধের প্রভাব খর্ব হয়ে যায় ।

৬) অ্যালোপাথি কিংবা আয়ুর্বেদিক ঔষধের সঙ্গে হোমিওপ্যাথিক ঔষধ রাখবেন না । এতে ঔষধের ক্ষমতা কমে যায় ।

৭) চিকিৎসা চলাকালীন চা এবং কফিকে যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলুন ।

৮) কোনও ভাবেই অন্য কোনও রোগীর ঔষধ নিজে খাবেন না । একই রকমের রোগ হলেও অন্য রোগীর ঔষধ খাওয়া কখনওই উচিত নয় । কারণ মনে রাখবেন , রোগীভেদে হোমিওপ্যাথি ঔষধও কিন্তু বদলে যায় ।

৯) যে জায়গায় ঔষধটা রাখবেন , সেখানে যেন কোনও ভাবেই সরাসরি রোদ না আসে ।

১০) ঔষধের শিশির ঢাকনা কখনওই খোলা রাখবেন না । ঠান্ডা এবং অপেক্ষাকৃত অন্ধকার জায়গায় ছিপি বন্ধ অবস্থায় ঔষধের শিশি রাখুন ।

Comments

comments

, , , , , , , , ,